স্বামী রোজই শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হতে চায়! স্ত্রী গেলেন আদালতে


প্রায় প্রতিদিনই স্বামী অতিরিক্ত মদ্যপ অবস্থায় বাড়ি ফেরেন। মদ পেটে পড়লেই তার যৌন চাহিদা অতিমাত্রায় বেড়ে যায়। আর স্বামীর চাহিদা মেটাতে মৃতপ্রায় দশা স্ত্রীর। এই অভিযোগে বিবাহ বিচ্ছেদ চেয়ে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন এক নারী। অভিযোগ, স্বামী রোজই শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হতে চায়, এর জন্য তাকে জোরও করা হয়। গত ১৪ বছর ধরে এই অত্যাচার সহ্য করতে করতে তিনি ক্লান্ত। এবার মুক্তি চান।


এমন ঘটনা ঘটেছে নাইজেরিয়ায়। নাইজেরিয়ার সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, আদালতের দ্বারস্থ হওয়া ওই মহিলার নাম ওলামাইড লাওয়াল। গত ১৪ বছর ধরে পেশায় ফ্যাশন ডিজাইনার সাহেদ লাওয়ালের সঙ্গে বিবাহিত জীবন কাটাচ্ছেন তিনি। দুজনের তিন সন্তানও আছে।


গত ৭ জানুয়ারি আদালতকে ওলামাইড অভিযোগ করেন, সাহেদ অতিরিক্ত মদ্যপান করেন। বিয়ার পেটে পড়লেই তার যৌন চাহিদা অতিরিক্ত মাত্রায় বেড়ে যায়। জোর করে যৌনতায় লিপ্ত হতে চান তিনি। এ রকম চলতে থাকলে তিনি মারা যাবেন বলে দাবি করেছেন ওলামাইড। তাই বিবাহ বিচ্ছেদ চেয়ে আদালতে অভিযোগ করেছেন তিনি।


ওলামাইড আরও জানিয়েছেন, স্বামীর হাত থেকে বাঁচতে তিন সন্তানকে নিয়ে আলাদা ফ্ল্যাটে থাকছেন তিনি। সেখানে যাতে সাহেদ না আসে তার জন্য নির্দেশ দিতে আরজি জানিয়েছেন আদালতে। একই সঙ্গে ওলামাইড আরও অভিযোগ করে বলেন, সাহেদ পরিবারের কোনো খরচ দেয় না। পরের কাছে হাত পেতে সংসার চালাতে হয় তাকে।


যদিও সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছেন অভিযুক্ত সাহেদ। তার কথায়, ‘এখন আমি মদ্যপান বন্ধ করে দিয়েছি। আমি আমার সন্তানদের দেখাশোনা করতে প্রস্তুত।’


এদিকে, এ মামলার বিচারক এস এম আকন্তায়ো মামলার শুনানি আগামী ১ মার্চ পর্যন্ত পিছিয়ে দিয়েছেন। দুজনকে শান্তিতে বিষয়টি মিটিয়ে নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।


কোন মন্তব্য নেই

Blogger দ্বারা পরিচালিত.